আমাদের মত করে বিজয়ের হাসি ক’জন হেসেছে?

গল্প গুলো খুব ছোট ছোট। কিন্তু তবু বিজয়ের গল্প! ভাষা হলো হাসি। প্রকাশ এটাতেই … … খুব আনন্দ কি কথায় বলা যায়? আমাদের গল্প গুলো অনুভূতির তাই।

এমন করে খুশীর ঝড় কি এমনি এমনি হয়? দরিদ্র এ দেশে অসহায় পরিবার থেকে আসা দৃষ্টিশক্তিহীন এই মেয়ে গুলো যখন আমার আপনাদের মত করেই “আমার বই” আর English For Today পড়ার সুযোগ পায়, তখন এটাই বিজয়! এই মেয়েটি, এই মেয়েগুলো বিজয়ের উচ্ছাসের শক্তি পেয়েছে কিছু মানুষের স্বেচ্ছাসেবা আর আন্তরিক সাহায্যের কারনে।
যখন কেউ তাদের পাশে দাঁড়িয়ে বলেছেঃ “আমি তোমাদের চোখ হব” , তখনি সম্ভব হয়েছে টিচার্স ট্রেনিং কলেজে প্রথমবারের মত একজন আলোহীন শিক্ষার্থীর আলোকযাত্রা। যে কিনা জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ের এডমিশন টেস্টে চব্বিশ তম হয়েছিল! কী অসম্ভব বিজয়, ভাবা যায়?

এই শিশুগুলো এতীম… মলিন মুখে থাকাটাই স্বাভাবিক। ওদের মুখে হাসি দেখাটাও আবার খুউব সহজ! একটু হেসে যদি জিজ্ঞেস করে কেউঃ ‘কেমন চলছে?’ ফিক করে হেসে দেবে! এবার শীতে গরম পোষাক ছিলোনা কারও। হয়তো কেউ কেউ বাড়ি থেকে চাদর আনার ব্যবস্থা করতো! কিন্তু এবার ওরা দলবেঁধে হেসেছে, শীতকে যে জয় করেছে!

 

 

সেবার চিন্তায় করা কিছু সঞ্চয় দিয়ে ওদের জন্য কেনা হয়েছিল সোয়েটার! কিছু মানুষ অতিরিক্ত কাপড় না কিনে হাসি দেখতে চেয়েছিলেন! ঈদে নতুন জামা হয়নি, তো কী হয়েছে?! শীতে পেয়েছে নতুন পোষাক , এটাই একরকম বিজয় না? হু, এটাই বিজয়!

 

নুর মোহাম্মদের গল্পটা মর্মান্তিক! প্রাণবন্ত একটা জীবন অসহায় হয়ে CRP তে ভর্তি হয়েছিল। দরিদ্র পরিবার সামান্য বেড ফী দেবার সামর্থ রাখেনা, সেখানে এই বাচ্চা ছেলেগুলো নুর মোহাম্মদের চারদিনের বেড ফী জমা দিয়ে তার বাবার জন্য লিখে এসেছিল ছোট একটা চিঠি, যখন বাবা চিঠি পেয়ে খুব বড় নিঃশ্বাস নিয়েছিল, তখন তাতে কি সামান্য হলেও বিজয় ছিলোনা? কিছুদিনের অর্থের চিন্তার মুক্তি কি কম বিজয়? এটাও বিজয়! আর বাচ্চাগুলো উদ্দেশ্য সাধন করে বিজয়ী হয়েই ফিরেছিল CRP থেকে!

রাজপথে কর্মরত পথশিশুগুলোর জন্য কিছুই করতে পারবো না আমরা, এই ভেবে তাকাই-ই না আর! অসহায় দৃষ্টিগুলো খুব কম-ই উজ্জ্বল হয়! অথচ সামান্যতেই কিন্তু উজ্জ্বল হয়, ওদের সাথে কেউ যখন হাসতে চায়! অল্প অল্প করে না হয় হোক শুরু! একটু একটু করেই না হয় স্বদেশ গড়ি! একসাথে অনেকে যখন একই স্বপ্ন দেখে, সেটা আর কী আর স্বপ্ন থাকে ??! উহু!

“A dream you dream alone is only a dream. A dream you dream together is reality.”
~ hadley John Lennon


এমন মায়া ভরা হাসি গুলো আমাদের কষ্ট ভরা সময়ে মন ভালো করে দিতে পারে সহজেই!
কে বলেছে হতাশ হলেই নেশাগ্রস্থ হতে হবে??

কৃতজ্ঞতায় যখন কেউ মলিন মুখেও হাসতে হাসতে আপনাকে আশাগ্রস্থ করে তুলবে, তখন হেরোইন ব্যাবসায়ীরা পথে বসতে বাধ্য!!

 

 

 

 

 

অসম্ভব সব ইচ্ছে গুলো হয়না পূরণ, তবু পেছনে ঠিকি ছুটে চলি নিরন্তর! ছোট্ট ছোট্ট ইচ্ছে গুলো হয়না শোনা, অথচ কত সহজেই ছুঁয়ে যাওয়া যায়! খুব সামান্য স্বপ্ন দেখে বাচ্চাগুলোঃ তারপর অপেক্ষা করে আকাশ থেকে পরী নেমে আসবে একদিন, আর তখন যা খুশী তাই চাইবে! একটা রঙ্গীন সানগ্লাসের শখ কতদিনের, আর জড়িওয়ালা চুরির! আর একটা আসল ঘড়ির, যেটা সত্যি সত্যি সময় দেখাবে, খেলনা ঘড়ি না কিন্তু! এগুলোই স্বপ্ন, বায়না করা যায়না মায়ের কাছে, সামর্থ নেই যে! দু’বেলা খেতে পাওয়াই বিজয়ের গান।

অথচ একটু চাইলেই পরী হতেই পারি আমরা!

সামান্য শাদা টি-শার্ট পেয়ে ওদের চোখে কি বিস্ময়, আমাদের ঘর-ভর্তি পোষাক কী কখনো আমাদের কৃতজ্ঞ করে? কবে একটা নতুন জামা হবে, এ অপেক্ষার শেষ হয়না! শখ করে পছন্দের ওই লাল জামাটাই কেনা হয়ে ওঠে ক’জনের? অথচ Ecstasy কিংবা আড়ং থেকে গলা কাটা দাম দিয়ে কেনা জামাটাও দিনের আলোতে আর রঙ ভালো লাগছেনা বলে ওয়্যাররড্রবে পরে থাকে দিনের পর দিন! আমাদের অবাক হওয়া হয়না … অথচ কোমল শিশুগুলোর চোখ উপচে পড়া বিস্ময়, এ বিষ্ময় বিজয়ের!


গল্প-কথকরা কিন্তু আমরা আমরাই! সত্যি-ই আমরা আমরাই! চাইলেই পারি, একটু যদি ভেবে ভেবে ঠিক সময়ে ঠিক কাজটা করতে পারি! আমাদের বিলাস কমিয়ে আনতে পারি বিজয়! আমাদের অবসরে বন্ধু-আড্ডা-গানে হারিয়ে না যেয়ে বরং সামান্য মুক্তির স্বাদ দিতে পারি অবহেলিত আর বঞ্চিতদের! বেশী স্পিডের ইন্টারনেট যেন আমাদের এঞ্জেলিনা জোলীর গরম গরম ছবি ডাউনলোডে প্রলুব্ধ না করে বরং সময় করে আপলোড করি আমাদের কথা, আমাদের ছবি, আমাদের বিস্ময়, অর্জন! হয়ে যেতে পারি Cyber সেবক !
এমন সব সেবায় হয়তো দেশটা সিঙ্গাপুর কিংবা মালয়েশিয়া হয়ে যাবেনা, কিন্তু তাতে কি? এসব প্রয়াসগুলো নিশ্চয় আমাদের বড় মন আর বিশুদ্ধ চিন্তার কিছু মানুষের জন্ম দেবে। এই মানুষ গুলো পরিণত বয়সে যখন হাল ধরবে জাতির, তখন সত্যি কিন্তু সিঙ্গাপুর চাইবে বাংলাদেশ হয়ে যেতে! একটুও বাড়িয়ে বলছিনা! কল্পনা করেওতো মন আর্দ্র হয়, হয়না?
তবে এবার ষোলতে বিজয় প্রকাশ করি ঠিক আমাদের বিবেক যেভাবে বলে সেভাবে!
পাশে আছে অনেক গুলো স্বপ্নবাজ ছেলে মেয়ে , তারা সাহায্য করবে আপনাদের! ঠিক যেই কাজটা মনে মনে ভাবছিলেন বিবেকের তাড়নায়, দায়বদ্ধতা থেকে, সেই কাজটা এবার সফল হয়ে যাক ?? :-)

সেবার মাধ্যমে হোক তবে বিজয়ের প্রকাশ!

About Sohaila Ridwan

Sohaila did Masters in Theoretical Physics and Bachelors in Physics from University of Dhaka. One founder and General Secretary at CommunityAction. E-mail: sohaila@ca-bd.org
This entry was posted in CommunityAction. Bookmark the permalink.

One Response to আমাদের মত করে বিজয়ের হাসি ক’জন হেসেছে?

  1. ridwan hossain akkhar says:

    sottie api, ai post er protiti shobdo bastob ar porom sotto, amra chailei pari ato hotashar majhe ashar ak chotto prodip jalte..

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *